কেশ প্রতিস্থাপনের জন্য একজন ডাক্তারের কী যোগ্যতা দরকার?



কেশ প্রতিস্থাপন হলো একটা মেডিক্যাল প্রক্রিয়া। কেবলমাত্র একজন মেডিক্যাল ডক্টরই এই প্রক্রিয়া করার যোগ্য। AHRS India (দ্য অ্যাসোসিয়েশন অব হেয়ার রেস্টোরেশনসার্জেন অব ইন্ডিয়া) হলো সেই ডাক্তারদের সরকারী সংস্থা যারা এই প্রক্রিয়া করার যোগ্য। কেবলমাত্র MS ENT, MS General Surgery, MD Derma এবং MCH Plastic Surgery ডিগ্রিই এই প্রক্রিয়া করার যোগ্য। আজকাল বহু প্রক্রিয়াই টেকনিসিয়ান, আয়ুর্বেদ, হোমিওপ্যাথ ও MBBS ডাক্তাররা করছেন তবে এটা মোটেই আইনসিদ্ধ নয়। ভারতে যদিও আইন প্রয়োগের শিথিলতার কারণে এই ধরনের আইন লঙ্ঘন এখনও অনুমোদিত হয়ে যাচ্ছে।

Dr.P.J.Mazumdar and Downtown Arogyam Hair Transplant Clinic introduces in Guwahati, Assam and the North East the most advanced technique for hair transplantation – the FUE method – which is extremely effective, painfree and highly comfortable for the patient.
Downtown Arogyam Hair Transplant Clinic is into its fifth year of operation from 2012 and 500+ patients have been treated effectively till date from all over Assam and the North-East including Meghalaya, Nagaland, Arunachal, Manipur, Mizoram and Tripura. Patients have also been treated from other states of India like Jharkhand, Bihar, West Bengal, Tamil Nadu, etc along with NRIs from UK, USA, New Zealand, Canada, Nepal, Bangladesh and Bhutan.

ডাক্তার সম্পর্কে প্রশ্ন

কেশ প্রতিস্থাপনের জন্য একজন ডাক্তারের কী যোগ্যতা দরকার?

কেশ প্রতিস্থাপন হলো একটা মেডিক্যাল প্রক্রিয়া। কেবলমাত্র একজন মেডিক্যাল ডক্টরই এই প্রক্রিয়া করার যোগ্য। AHRS India (দ্য অ্যাসোসিয়েশন অব হেয়ার রেস্টোরেশনসার্জেন অব ইন্ডিয়া) হলো সেই ডাক্তারদের সরকারী সংস্থা যারা এই প্রক্রিয়া করার যোগ্য। কেবলমাত্র MS ENT, MS General Surgery, MD Derma এবং MCH Plastic Surgery ডিগ্রিই এই প্রক্রিয়া করার যোগ্য। আজকাল বহু প্রক্রিয়াই টেকনিসিয়ান, আয়ুর্বেদ, হোমিওপ্যাথ ও MBBS ডাক্তাররা করছেন তবে এটা মোটেই আইনসিদ্ধ নয়। ভারতে যদিও আইন প্রয়োগের শিথিলতার কারণে এই ধরনের আইন লঙ্ঘন এখনও অনুমোদিত হয়ে যাচ্ছে।





ডাক্তার কি যোগ্যতাসম্পন্ন?

এটাই হলো সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন যা রোগী তাঁর ডাক্তারকে করতে পারেন। রোগীকে অবশ্যই নিশ্চিত হতে হবে যে তাঁর ডাক্তারের উপরে উল্লেখিত যোগ্যতাগুলি রয়েছে কিনা। উপরে উল্লেখিত ডিগ্রি রয়েছে কেবলমাত্র এমন একজন ডাক্তারই একটা কেশ পডরতিস্থাপন করার যোগ্য।

AHRS India-র সদস্যপদই হলো ডাক্তারের যোগ্যতা যাচাইয়ের একটা গুরুত্বপূর্ণ উপায়। কেবলমাত্র যোগ্য ডাক্তাররাই এর সদস্য হতে পারেন। AHRS India বেশ কিছু নিয়ম ও বিধি জারি করো যা তার সদস্যদের মেনে চলতে হয়, এবং তাই এই সংস্থার সদস্যপদ স্বয়ংক্রিয়ভাবে নিশ্চিত করে যাতে, কঠোর নৈতিক এবং নিরাপত্তা পদ্ধতি অনুসরণ করা হবে।

ড. পি. জে. মজুমদার AHRS India-র একজন সদস্য।

কে প্রক্রিয়াটা করবেন? FUE অংশটা ডক্টর করবেন নাকি অন্য কেউ?

জিজ্ঞাসা করার জন্য এটাও একটা গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন। যে ডাক্তার পর প্রাথমিক পরামর্শ দেন তিনিই অপারেট নাও করতে পারেন। অনেক সময় টেকনিসিয়ান বা অন্য কেউ প্রক্রিয়াটা করেন। এটা নিশ্চিত হওয়া গুরুত্বপূর্ণ যাতে FUE-এর মূল প্রক্রিয়া, চুল বের করে আনা, ও স্লিট বানানো বা ছিদ্র করা যেখানে গ্রাফ্ট ঢোকানো হবে এই সমস্ত কাজই একজন যোগ্য ডাক্তার করবেন। সাধারণত চুলের রোপন সর্বত্র অ্যাসিস্ট্যান্টরাই করেন যেহেতু, কারণ এর জন্য প্রয়োগিক বিজ্ঞান জানতে হয় না।

এটা কি কোনো উড়ে আসা ডাক্তার করবেন নাকি আবাসিক চিকিৎসক করবেন?

এটাও একটা গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন। বহু ক্লিনিক, বিশেষ করে বিজনেস চেইনগুলির লোকাল ফ্র্যাঞ্চাইসগুলি এমন ডাক্তারদের পান যাঁরা দিন দুখের জন্য আসেন, প্রক্রিয়া করেন আর তারপর বেপাত্তা হয়ে যান। রোগীর কোনো সমস্যা থাকলে সেক্ষেত্রে তিনি আর সেই ডাক্তারকে পান না যিনি প্রক্রিয়াটা করেছেন। এই ধরনের ফ্লাই-বাই-নাইট ডাক্তাররা প্রকৃত বিশেষজ্ঞ নন, এরা মোটামুটি সর্বজনীন ডাক্তার যারা একেবারেই নতুন বা যাঁরা তাঁদের শহরে সফল না হলে রোগী পেতে বাইরে যাওয়ার চেষ্টা করছেন। একজন বিশেষজ্ঞ ডাক্তারকে কখনোই রোগীর প্রত্যাশায় কোথাও যেতে হয় না, রোগীই তাঁর কাছে আসেন।

যিনি ইতিমধ্যেই সফল তেমন একজন ডাক্তারের পক্ষে প্রক্রিয়া করতে আরেকটা শহরে যাওয়া ফলপ্রসূ হয় না, যাতায়াতের ঝামেলা ও খরচ খুবই অসুবিধার হয়ে যায় এবং তিনি সবসময়েই নিজের শহরে থাকাই পছন্দ করেন। কেবলমাত্র যাঁরা সফল নয়, নিজের শহরে যাঁদের যথেষ্ট রোগী নেই তাঁরাই অন্য শহরে যান।

ক্লিনিকের কী যোগ্যতা থাকা দরকার?

কেশ প্রতিস্থাপন করতে একটা ক্লিনিককে নির্দিষ্ট মাপকাঠি পূরণ করতে হবে। মোটের উপর কেশ প্রতিস্থাপন একটা অস্ত্রোপচার প্রক্রিয়া, ছোটখাটো হলেও সংক্রমণের মতো সমস্যা দেখা দিতে পারে যদি ক্লিনিকটা যোগ্যতাসম্পন্ন না হয়। শুধু একটা কমার্সিয়াল বিল্ডিংয়ে কয়েকটা রুম ভাড়া নেওয়াই একটা ক্লিনিক চালু করার পক্ষে যথেষ্ট নয়। ক্লিনিকের অবশঙই উপযুক্ত স্টেরিলাইজেশন প্রক্রিয়া থাকা উচিত, যার মধ্যে ডিসইনফেকশন, উপযুক্ত সুরক্ষা প্রক্রিয়া ও যথাযথ ইমার্জেন্সি প্ল্যান থাকবে যাতে খারাপ কিছু হলে ব্যবস্থা নেওয়া যায়। অবশ্যই যথাযথ একটা ব্যাকআপ ও ইমার্জেন্সির সুবিধা থাকতে হবে। বেশিরভাগ ক্লিনিকের্ পক্ষেই এটা নিশ্চিত করা অসম্ভব।

ক্লিনিকটি কি যোগ্যতাসম্পন্ন?

রোগীর এই বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া জরুরী যেন ক্লিনিকটা যথাযথ যোগ্যতাসম্পন্ন হয়। রোগীর খোঁজ নেওয়া উচিত যে আদৌ যথাযথ স্টেরিলাইজেশন পদ্ধতি অনুসরণ করা হয় কিনা। এবার তাঁর এও নিশ্চিত হওয়ার দরকার যে ক্লিনিকের ইমার্জেন্সি ব্যাকআপ রয়েছে কিনা।

তাঁকে এব্যাপারে নিশ্চিত হতে হবে যে ক্লিনিক প্রাথমিকভাবে একটা হোমিওপ্যাথিক/আয়ুর্বেদিক ক্লিনিক কিনা নাকি অ্যালোপ্যাথিক (বৈজ্ঞানিক মেডিক্যাল ব্যবস্থা) ক্লিনিক। কেশ প্রতিস্থাপন হলো একটা আধুনিক মেডিক্যাল চিকিৎসা এবং হোমিওপ্যাথিক বা আয়ুর্বেদিক অথবা নন-মেডিক্যাল সেন্টারের এটা করার এক্তিয়ার নেই। যেখানেই এই ধরনের সেন্টার এই চিকিৎসা করছে, তা বেআইনীভাবেই করা হচ্ছে, ভারতে আইন প্রয়োগে শিথিলতার সুযোগ নিয়ে।

আরোগ্যম হেয়ার ট্রান্সপ্ল্যান্ট ক্লিনিক হলো ডাউনটাউন হসপিটালের একটা অংশ, উত্তর-পূর্বে সবচেয়ে বড় বেসরকারী হাসপাতাল এবং অন্যতম প্রাচীন এবং মেডিক্যাল পরিষেবায় শ্রেষ্ঠত্বের জন্য দারুণ সুনাম রয়েছে। এটা একটা ISO রেজিস্টার্ড হাসপাতাল, এবং সমস্ত প্রক্রিয়ার জন্য এখানে আবশ্যিকভাবে কঠোর নিয়মকানুন মানা হয়।

ক্লিনিকটা কি সবচেয়ে ভালো যন্ত্রপাতি ও সর্বোত্তম চর্চা ব্যবহার করছে

এটা এমন কিছু যা নিশ্চিত করা খুবই কঠিন কারণ অবশ্যই প্রত্যেক ক্লিনিক বলবে তারা এমনটাই করবে, তা সত্য না মিথ্যা যাই হোক। তবে সর্বোত্তম ফল পেতে এটাই অপরিহার্য। কেশ প্রতিস্থাপনের প্রতিষ্ঠিত নিয়ম ও প্রক্রিয়া রয়েছে, তবে সস্তার ক্লিনিকগুলি যত শীঘ্র সম্ভব প্রক্রিয়াটা সম্পন্ন করার চেষ্টা করে। সাধারণত তারা দ্বিতীয় মানের সরঞ্জাম ব্যবার করবে যা সবচেয়ে ভালো মানের থেকে সস্তা।

আরোগ্যম হেয়ার ট্রান্সপ্ল্যান্ট ক্লিনিক গুণমান নিশ্চিত করতে উপলভ্য সর্বোত্তম যন্ত্রপাতিই ব্যবহার করে। এর মধ্য অন্তর্ভুক্ত:





  • 6X হাইনে আতস কাঁচ: সেরা দর্শন যা সমস্ত স্তরে নির্ভুলতা ও সঠিকতা দেবে তেমন অবস্থার মধ্যে প্রক্রিয়াটা সম্পন্ন করা নিশ্চিত করে এই আতস কাঁচ। 6X আতস কাঁচের পরিস্থিতির সাথে খাপ খাইয়ে নেওয়া সমস্যার এবং উত্তর-পূর্বে এই প্রথম এটা ব্যবহার করা হচ্ছে।
  • ব্লান্ট টাইটেনিয়াম পাঞ্চ: চুল তোলার জন্য আরোগ্যম ক্লিনিকব্লান্ট টাইটেনিয়াম পাঞ্চ ব্যবহার করে। বেশিরভাগ ক্লিনিকই ধারালো পাঞ্চ ব্যবহার করে। ব্লান্ট বা ভোঁতা পাঞ্চ সামলানো কঠিন তবে এটা গ্রাফ্টের ট্রান্সেকশন ও ক্ষতি এড়াতে পারে। শার্প বা ধারালো পাঞ্চগুলি দ্রুতগতির কিন্তু এগুলি থেকে প্রচুর কেটে যায় ও ক্ষতি হয়।
  • চোই ইমপ্ল্যান্টার: এগুলি হলো একটা বিশেষ ধরনের যন্ত্র যা ইমপ্ল্যান্টেশনের সময় ব্যবহার করা হয় এবং যা গ্রাফ্টের কম নাড়াচাড়া নিশ্চিত করে আর এভাবেই আরো ভালো ফল দেয়। বেশিরভাগ ক্লিনিকই ম্যানুয়াল ইমপ্ল্যান্টেশন করে থাকে।
  • স্টেরিলাইজেশন, অটোক্লেভিং ও ফিউমিগেশান: আরোগ্যম ক্লিনিকটা রয়েছে মূল ওটি কমপ্লেক্সের মধ্যে এবং প্রক্রিয়ার জন্য পূর্ণ নিরাপত্তা প্রদান করতে এটাই সেরা স্টেরিলাইজেশন ও ফিউমিগেশন প্রযুক্তি নিশ্চিত করে।

ক্লিনিকটি কতদিন ধরে এই প্রক্রিয়া করছে?

ক্লিনিকের যাতে পর্যাপ্ত অভিজ্ঞতা থাকে তা নিশ্চিত করাও গুরুত্বপূর্ণ। দ্রুত কিছু টাকা কামিয়ে নিতে ভারতজুড়ে বহু নতুন ক্লিনিক আসছে এবং শুধুমাত্র অভিজ্ঞতা সঞ্চয় করতে ও প্রক্রিয়ার চর্চা রাখতে এগুলি প্রায়শই খুবই সস্তা দর হাঁকে।

এছাড়াও এমন বহু ক্লিনিক রয়েছে যারা আসলে বড় বিজনেস চেইনের ফ্র্যাঞ্চাইস, যদিও সেই বিজনেস চেইনের হয়তো কিছু অভিজ্ঞতা রয়েছে কিন্তু ফ্র্যাঞ্চাইসগুলি নিজেরা একেবারেই অনভিজ্ঞ।

আরোগ্যম হেয়ার ট্রান্সপ্ল্যান্ট 2012সাল থেকে মোটরচালিত পাঞ্চ দিয়ে FUE কেশ প্রতিস্থাপন করছে, এবং একথাও উল্লেখ করা দরকার যে এই প্রক্রিয়াটা আন্তর্জাতিক স্তরে 2006 থেকে এবং ভারতে 2009 নাগাদ সময় থেকে প্রতিষ্ঠিত।

হেয়ার ট্রান্সপ্ল্যান্ট বিজনেস চেইন ও তাদের ফ্র্যাঞ্চাইজগুলি কতটা নির্ভরযোগ্য?

গত কয়েক বছরে একটা নতুন বিষয় চেখে পড়ছে যে ভারতে হেয়ার ট্রান্সপ্ল্যান্ট বিজনেস চেইন তৈরি হয়েছে। এই চেইনগুলি দেশের ছোট ছোট শহর ও মফস্বলে নতুন ফ্র্যাঞ্চাইস খুলছে।

এই ধরনের চেইন ও তাদের ফ্র্যাঞ্চাইসগুলির সব থেকে খামতিটা হলো চিকিৎসার গুণমান। বিজনেস সেন্টারগুলি ছোট ছোট শহরে প্রক্রিয়া করার জন্য তাদের অপারেটারদের পাঠাচ্ছে, কিন্তু ব্যাতিক্রমহীনভাবে এই অপারেটারদের খুব কম বেতন এবং বছর দুয়েকের বেশি এরা স্থায়ী হন না। তাই এদের বেশিরভাগটাই হয় অল্প বয়সের ছেলেপুলে কিছুটা অভিজ্ঞতা ও প্র্যাক্টিসের জন্য আগ্রহী। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই এরা হোমিওপ্যাথি কিংবা আয়ুর্বেদিক ডাক্তার নয়তো কেবলই ওটি টেকনিসিয়ান। এদের খুব কমই থাকে যাঁরা MBBS পাস করেছেন। কিন্তু অবশ্যই উল্লেখনীয় যে কেবলমাত্র MS ENT, MD Derma, MS General Surgery ও MCH Plastic Surgery-ই কেশ প্রতিস্থাপনের যোগ্য। বড় চেইনগুলির মধ্যে কখনোই এই ধরনের যোগ্যতা মেলে না। এই ধরনের চেইনগুলি ইন্টিরিয়র বা লাইটিং সম্ভাব্য ক্রেতার কাছে আকর্ষণীয় লাগতে পারে এবং এটা করার জন্য তাঁরা খুব কম ক্ষেত্রেই সঠিক স্টেরিলাইজেশন অর্জন করতে যত্ন নেন। এটা বলতেই হবে যে ভালো অপারেশন থিয়েটার দারুণ ডেকরেটিভ হতে পারে না কারণ নিয়ম হিসেবে থিয়েটার যতটা সম্ভব খালি রাখা দরকার নাহলে ডেকরেশন আসলে ধূলো আকর্ষণ করে। ক্লিনিকগুলির মূল লক্ষ্য যেহেতু ক্রেতা টানা তাই এই সমস্ত বিচার বিবেচনাগুলিকে গুরুত্ব দেওয়া হয় না।





এই ধরনের চেইনগুলির বড় সুবিধা হলো এরা বিজ্ঞাপনের পেছনে প্রচুর টাকা খরচ করতে পারে কারণ তাদের বাজেট অনেক বেশি। তারা বিভিন্ন পদ্ধতির বর্ণনা দিয়ে মনোগ্রাহী স্লোগান নিয়ে হাজির হয় যদিও খুব শীঘ্রই সেগুলি বাতিল হয়ে নতুন বিজ্ঞাপন চলে আসে। এরা সংবাদপত্র ও রেডিওতেও বড় মাত্রায় বিজ্ঞাপন দিতে পারে এবং অসন্দিগ্ধচরিত্র ক্রেতা মাথা খারাপ করার মতো ছাড় দেওয়ার প্রস্তাব দিতে পারে।

ওরা এই ধরনের ছাড় দিতে পারে কারণ ওদের ‘শল্যবিদদের’ খুব কম টাকা দিতে হয়, এবং এরা চুল গ্রাফ্টের গুণমান ও সংখ্যার সঙ্গেও আপস করে। সাধারণত তারা যে সংখ্যক গ্রাফ্ট করার প্রস্তাব দেয় তার থেকে অনেকটা কম করে এবং নষ্ট ও কাটা গ্রাফ্টও বসিয়ে দেয়। দাম নির্ধারণের আরেকটা কৌশল হলো গ্রাফ্টের বদলে চুলের সংখ্যা গোণা।

এই ক্লিনিকগুলির মূল উদ্দেশ্য হলো যত বেশি সম্ভব ক্রেতা হাতানো যেটা এরা বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে করে। ফলাফল নিয়ে এরা মোটেই চিন্তিত নয় এবং এদের কাছে ক্রেতা আর ফিরে যান না। কিন্তু তাদের প্রচুর বিজ্ঞাপন ও সস্তার জন্য তারা লাভ করতে পারে।




পরিশেষে, একটা হেয়ার ট্রান্সপ্ল্যান্ট ক্লিনিক বাছাই করা খুবই ঝুঁকির কাজ হয়ে গেছে। সম্ভাব্য ক্রেতাকে অবশ্যই সতর্ক হতে হবে এবং প্রক্রিয়ার জন্য যাওয়ার আগে যুক্তি ও সাধারণ জ্ঞানের উপর ভরসা করতে হবে। বিজ্ঞাপন ও সস্তা দামের উপর অবশ্যই তাঁর ভরসা রাখা উচিত নয়। বাস্তবে বড় ছাড় প্রায়শই একটা লক্ষণ যে ক্লিনিক কোথাও একটা বড় ধরনের শর্টকার্ট করছে। মেডিক্যাল প্রক্রিয়াগুলি ছাড়ের জন্য উপযুক্ত নয় কারণ এতে গুণমান নিশ্চিত করতে হয়। গুণমানের তোয়াক্কা না করে যারা সস্তা দামের দিকে ঝুঁকবেন অবশ্যই তাঁদের মান নিয়ে অস্তুষ্ট হতে হবে। রোগী যাতে সন্তোষজনক ফলাফল পেতে পারেন যা তাঁকে খুসি করবে তেমনটা নিশ্চিত করতে অবশ্যই ডা্ক্তার ও ক্লিনিকের যোগ্যতা যাচাই করা দরকার। মোটের উপর কেশ প্রতিস্থাপনের ফলাফলটা সবসময়েই রোগীর উপর দেখা যাবে এবং একটা খারাপ প্রতিস্থাপন রোগীর জীবন বরবাদ করে দিতে পারে।


ডাঃ পি জে মজুমদার।
আরোগ্যম হেয়ার ট্রান্সপ্লান্ট ক্লিনিক


এটি অবস্থিত
ডাউনটাউন হসপিটাল, দিসপুর,,
গুয়াহাটি,
আসাম.

ফোন: 09864014046.
.


সঠিক খরচ এবং অন্যান্য তথ্য জানার জন্য, এবং অ্যাপয়মেন্টের জন্য, এই নম্বরে এস এম এস করুন বা সরাসরি ফোন করুন ⇒ 09864014046

অথবা ইমেইল করুন ⇒ email

পরামর্শের সময়:

ডাউনটাউন হসপিটাল:
রবিবার ছাড়া সপ্তাহের প্রতিদিন দুপুর 2টা থেকে 5টা পর্যন্ত
ডাউনটাউন আরোগ্যম হেয়ার ট্রান্সপ্লান্ট ক্লিনিক,
115 নম্বর ঘর, 1নম্বর বিল্ডিং, ডাউনটাউন হসপিটাল

আরোগ্যম মাল্টিস্পেশালিটি হেল্থ ক্লিনিক:
রবিবার ছাড়া সপ্তাহের প্রতিদিন বিকেল 5টা থেকে 7টা পর্যন্ত।
ঠিকানা:
আরোগ্যাম মাল্টিস্পেশালিটি হেল্থ ক্লিনিক
রুক্ষ্মিনীগাঁও, জি এস রোড, 6মাইলের দিকে ডাউনটাউন হসপিটাল থেকে প্রায় 50মিটার দূরে।
পিআইবিসিও এবং এইচ ডি এফ সি ব্যাঙ্কের বিপরীতে
ফোন:
09854041111, 8811077011


আপনি যদি আমাদের পরিষেবা উপভোগ করে থাকেন তাহলে অনুগ্রহ করে একটা গুগল রিভিউ করে দিন গুগল রিভিউ:
Google Review

গুণমানের নিশ্চয়তা:
আরোগ্যম হেয়ার ট্রান্সপ্ল্যান্ট ক্লিনিক সেই গুণমান নিশ্চিত করতে বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়ে থাকে যা প্রত্যেক রোগীর ক্ষেত্রেই বজায় রাখা হয়। গুণমান রক্ষণাবেক্ষন বজায় রাখার চাবিকাঠি হলো পরিমাপযোগ্য গুণের মাপকাঠির রূপায়ন ও সঠিক ডকুমেন্টেশন ও প্রক্রিয়ার পর্যালোচনা বজায় রাখা। ডাউনটাউন হসপিটালটি একটি ISO 9001:2008 এবং NABH স্বীকৃত হসপিটাল যা গুণমান নিয়ন্ত্রণের প্রতি কঠোর আনুগত্য দাবি করে। গ্রহণ করার জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপগুলি হলো:

100% নিরাপত্তার নিশ্চয়তা: সমস্ত প্রক্রিয়াগুলিই করা হয় প্রয়োজনীয় অ্যানাস্থেসিওলজিস্ট ও ক্রিটিকাল কেয়ার স্পেশালিস্টদের দিয়ে ডাউনটাউন হসপিটালের মূল ওটি-তে। তাই রোগীরা ট্রান্সপ্লান্ট সার্জারি সহ বড় বড় অস্ত্রোপচারের মতোই পূর্ণ নিরাপত্তার মান নিশ্চিত থাকেন।

100% স্টেরিলাইজেশনের নিশ্চয়তা: মেজর ওটি-তেই যেহেতু প্রক্রিয়াগুলি হয় তাই স্টেরিলাইজেশন বজায় থাকে। প্রতি সপ্তাহে ফিউমিগেশন করা হয় এবং দূষণ নিয়ন্ত্রণের জন্য সোয়াব টেস্ট করা হয়।

সবচেয়ে ভালো যন্ত্রপাতি: আরোগ্যম হেয়ার ট্রান্সপ্ল্যান্ট ক্লিনিক উপলব্ধ সেরা যন্ত্রপাতি ব্যবহার করে যেমন নিখুঁত ও নির্ভুল করতে 6X হাইনে আতস কাঁচ, ব্লান্ট টাইটেনিয়াম পাঞ্চ যা গ্রাফ্টের ক্ষতি ও ট্রান্সেক্শন এড়ায়, রোপন প্রক্রিয়ার মান ধরে রাখতে ও রোপনের সময় ক্ষতি এড়াতে চোই ইমপ্ল্যান্টার্স, বড় ধরনে ওটি স্টেরিলাইজেশন, সমস্ত যন্ত্রপাতির ফিউমিগেশন এবং অটোক্লেভিং প্রভৃতি।

কর্মক্ষমতা গণনা: ট্রান্সেকশনের হার ও রোপনের গতির মতো ফিউ-এর কর্মক্ষমতা গণনাগুলি নোট করা হয় এবং প্রত্যেকটি কেসের জন্য ডকুমেন্টেশন হয় এবং প্রতি 10টি কেসের এই তথ্যগুলি পর্যালোচনা করা হয়। আরোগ্যম হেয়ার ট্রান্সপ্ল্যান্ট ধারাবাহিকভাবে ট্রান্সেকশনের হার ও রোপনের গতির আন্তর্জাতিক মাপকাঠি পূরণ করে আসছে। সঠিক প্রাপক ঘনত্ব: সঠিক প্রাপক ঘনত্ব নিশ্চিত করতে, ‘ডেনসিটি স্ট্যাম্প’ ব্যবহার করা হয়। চুলের কোণ ও দিশাগুলি নিখুঁতভাবে বজায় রাখা হয়।

আউট অব বডি টাইম: আউট অব বডি টাইম হলো সেই সময়টা যতক্ষণ গ্রাফ্ট শরীরের বাইরে থাকে, কেশ প্রতিস্থাপনে সাফল্যের জন্য এটাই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। এই সময়টা যাতে ন্যূনতম হয় তা নিশ্চিত করতে আরোগ্যম হেয়ার ট্রান্সপ্ল্যানডট একটা বিশেষ পদ্ধতি অনুসরণ করে। একবারে শুধুমাত্র 500-600 গ্রাফ্ট নিয়ে কাজ করে এবং সেগুলিকে নতুন করে রোপন করেই এটা করা হয়। এর ফলে নিশ্চিত করা যায় যেন আউট অব বডি টাইম 1 ঘন্টা বা তার থেকেও কম সময় হয়।এই সংক্ষিপ্ততম সময়টাই অর্জনযোগ্য। বহু সেন্টারই একই বারে 2000-2500 গ্রাফ্ট করে ফলে আউট অব বডি টাইম 4-5ঘন্টা হয়ে যায়। আমরা আমাদের আউট অব বডি টাইম নিয়েই গর্বিত। এতে যদিও কিছুটা সময় দিতে হয় কিন্তু ফলাফল আরও বেশি গুরুত্বপূর্ণ।

ফলো আপ: রোগীদের মনে যখন অনেক সন্দেহ ও উদ্বেগ থাকে তখন এই ফলো আপ পর্ব খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এই পর্বে রোগীদের কোনো প্রশ্ন থাকলে আমাদের ক্লিনিকে, ড. পি. জে. মজুমদারের সঙ্গে রোগীরা সবসময় যোগাযোগ করতে পারেন তাঁর ব্যক্তিগত মোবাইল নম্বরে।



ড. পি. জে. মজুমদারের শিক্ষাগত শংসাপত্র এখানে পরীক্ষা করা যেতে পারে: শিক্ষাগত শংসাপত্র। তাঁর জীবনবৃত্তান্ত এখানে পরীক্ষা করা যেতে পারে: জীবনবৃত্তান্ত। যোগাযোগের ঠিকানা ও অন্যান্য বিস্তারিত বিবরণ জানার জন্য যোগাযোগ-এ যান। ব্লগে বরভিন্ন ব্লগ পোস্ট রয়েছে মূলত যা কেশ প্রতিস্থাপনের উপরেই। ডাউনটাউন হেয়ার ট্রান্সপ্ল্যান্ট ক্লিনিকে করা কেশ প্রতিস্থাপন কেসগুলির ছবি দেখতে গ্যালারিতে যান। ব্লগ, ফোরাম ও গ্যালারি পেজগুলি এখনও নির্মাণ পর্যায়ে রয়েছে, অনুগ্রহ করে মাস খানেক পর আবার দেখুন।

পলাশ মজুমদারের দ্বারা রচিত

নিবন্ধের তালিকা

List of articles



ৰচনাৰ সুচী

आलेखों की सूची